লোকারণ্য সভায় ওয়াদা,দোলন এমপি হলে ফরিদপুর-১আসন হবে আদর্শ সমৃদ্ধ অঞ্চল

লোকারণ্য সভায় ওয়াদা, দোলন এমপি হলে ফরিদপুর-১ আসন হবে আদর্শ সমৃদ্ধ অঞ্চল

বোয়ালমারী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি
ঈগল মার্কার প্রার্থী আরিফুর রহমান দোলনের ব্যাপক প্রচার-প্রচারণায় ফরিদপুর-১ আসনে জমে উঠেছে সংসদ নির্বাচনের আমেজ। আগামী ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় ভোটকে সামনে রেখে গণসংযোগ, নির্বাচনী সভায় ব্যস্ত সময় পার করছেন স্বতন্ত্র এ প্রার্থী। গ্রহণযোগ্যতায় ভোটাররা দোলনকে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে এগিয়ে রাখছেন।

প্রচারের ১৩তম দিনে শনিবার বিকালে বোয়ালমারী উপজেলার রূপাপাত বাজার সংলগ্ন খেলার মাঠে দোলনের নির্বাচনী সভায় তেমনটাই দেখা গেল। এই কর্মসূচিতে ঠাঁই ছিল না মাঠটিতে। লোকে-লোকারণ্য। সবার মুখেই ছিল ঈগল মার্কার স্লোগান।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আরিফুর রহমান দোলন। বক্তব্যে তিনি ফরিদপুর-১ আসনের মানুষকে যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তা বাস্তবায়নে দৃঢ় প্রত্যয় রাখেন। জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী দোলন আগামী ৭ জানুয়ারি ঈগল মার্কায় ভোট দিয়ে নিজেদের অধিকার ও সম্মান প্রতিষ্ঠা করতে ভোটারদের কাছে প্রার্থনা করেন।

দোলন বলেন, ‘তিন উপজেলার মানুষ যেন উন্নয়নের সুফল দিতে চাই। সেই জন্য আমি আপনাদের কাছে ঈগল মার্কায় ভোটের আর্জি জানাই। আমি আপনাদের ঘরের ছেলে, নির্বাচিত হলে আমি ঘরেই থাকবো। ফরিদপুর-১ আসনকে স্মার্ট ও মডেল জনপদ হিসেবে গড়ে তুলবো।’

রূপাপাত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান সোনার সভাপতিত্বে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের পাশাপাশি দল-মত নির্বিশেষে হাজার-হাজার জনতা সভায় অংশ নেন।

উপস্থিত জনতা ঈগল মার্কার স্লোগানে স্লোগানে গোটা এলাকা মুখর করে রাখেন। দোলনকে কাছে পেয়ে তারা বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন। আর স্বতন্ত্র প্রার্থী দোলন এমপি নির্বাচিত হলে সব সমস্যা পর্যায়ক্রমে সমাধানের আশ্বাস দেন।

দোলন জনতার উদ্দেশে বলেন, ‘এমপি হয়েও যারা এতদিন ফরিদপুর-১ আসনের মানুষের কল্যাণে কোনো ভূমিকা রাখেননি, উন্নয়ন করেননি, দুর্ব্যবহার করেছেন, অসম্মান করেছে, তাদের বেলায় সতর্ক থাকতে হবে। আপনাদের কাছে আমার প্রার্থনা আগামী ৭ জানুয়ারি ভোটকেন্দ্রে আসবেন। নিজেদের কল্যাণের জন্যই ঈগল মার্কায় ভোট দেবেন।’

প্রথমবার সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়া কৃষক লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি দোলন গত দুই দশক ধরে আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারী ও মধুখালীর মানুষের কল্যাণে বহুমুখী বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছেন।

সভায় তিনি বলেন, ‘আমি এমপি পদে ভোটে লড়ছি একটি বড় পরিকল্পনা নিয়ে। সেটি হচ্ছে ফরিদপুর-১ আসনকে গোটা দেশের মানুষের কাছে একটা আদর্শ অঞ্চল হিসেবে তুলে ধরা। সেই লক্ষ্য নিয়ে জনপ্রতিনিধি না হয়েও এতদিন আমি আপনাদের পাশে ছিলাম। এমপি হলে আরও বেশি করে আমাকে পাবেন।’

এসময় দোলন পবিত্র কাবা শরীফ ছুঁয়ে শপথের কথা পুনর্ব্যক্ত করে বলেন, ‘আমি এমপি হলে বেতন-ভাতার এক টাকাও নিজের জন্য ব্যয় করবো না। বরং ফরিদপুর-১ আসনের হতদরিদ্র মানুষের জীবনমান উন্নয়নে বিলিয়ে দেবো।’

ফরিদপুরের মানবকল্যাণী কৃতী পুরুষ প্রয়াত কাঞ্চন মুন্সীর প্রপৌত্র আরিফুর রহমান দোলন জনকল্যাণমূলক সমাজসেবা করে গোটা অঞ্চলের মানুষের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়। ভোটের মাঠে নামার পর থেকে প্রতিদিনই তিনি হাজার হাজার মানুষের শুভেচ্ছা-ভালোবাসায় সিক্ত হচ্ছেন।

ফরিদপুর-১ আসনের মানুষের জন্য দোলনের পরিকল্পনার মধ্যে অন্যতম কয়েকটি হচ্ছে, বেকারত্ব সম্পূর্ণ দূরীকরণ; সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে কৃষিভিত্তিক শিল্পাঞ্চল স্থাপন; কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা; রাষ্ট্রায়ত্ত চিনিকলকে লাভজনক করা; ডিজিটাল দুনিয়ার সুফল নিশ্চিত করতে বিনামূল্যে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট জোন তৈরি করা; নারী ও শিশুদের সার্বক্ষণিক সেবাদানের জন্য কলসেন্টার চালু করা।

#

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *