সিদ্ধিরগঞ্জে দুর্ধর্ষ ডাকাত, ককটেল সাহেব আলী গ্রেফতার ।

নিজস্ব প্রতিবেদক :

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে নাসিক ৪ নম্বর ওয়ার্ডের আটি ওয়াপদা কলোনীর এলাকার কুখ্যাত দুর্ধর্ষ ডাকাত, ছিনতাইকারী ও সন্ত্রাসী ককটেল সাহেব আলী (৩৫) কে অবশেষে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ।

৪ নম্বর ওয়ার্ড বিট পুলিশিং এর ওপেন হাউজের বক্তব্যে ও
এলাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে এক সপ্তাহ চেষ্টার ফলে শনিবার (১৮ ই ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (অপারেশন) হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে নাসিক ৪ নম্বর ওয়ার্ডের আটি ওয়াপদা কলোনী এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে এই ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ১০/১২ টি নিয়মিত মামলা ও একাধিক গ্রেফতারী পরোয়ানা রয়েছে বলে জানিয়েছে ।

কুখ্যাত দুর্ধর্ষ ডাকাত, ছিনতাইকারী ও সন্ত্রাসী সাহেব আলী নাসিক ৪ নম্বর ওয়ার্ডের আটি ওয়াপদা কলোনী এলাকার মৃত গিয়াস উদ্দিনের ছেলে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ৪ নংওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী নুরুদ্দিন মিয়া জানান, মনোয়ারা জুট মিলের যন্ত্রাংশ ও আটি ওয়াপদা কলোনির শোরাভ ওয়েল মিলের যাবতীয় ইঞ্জিন মটরসহ সব বিক্রি করে নিয়ে যায় এই ককটেল সাহেব আলী , এবং সাহেব আলীর সঙ্গে কারা জড়িত তাদেরকে সহ আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেওয়া হবে ।

এসময় অভিযানে আরো উপস্থিত ছিলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সানোয়ার হোসেন, জানান সাহেব আলীকে ধরতে গেলে সাহেব আলী নদীতে ঝাঁপ দেয়, তারপর আমি নিজেও নদীতে ঝাঁপ দিয়ে ওকে ধরে ফেলি ।

এ সময় অভিযানে আরো উপস্থিত ছিলেন , সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক,
ইয়াউর রহমান, আ: রাজ্জাক,
আলমগীর হোসেন, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) হাসান মিয়া, জহিরুল ইসলাম-১, জহিরুল ইসলাম-২, শওকত হোসেন, এসআই আলমগীর হোসেন, এএসআই হাসান ।

এদিকে, সাহেব আলী গ্রেফতার হওয়ার সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসীর মধ্যে স্বস্তি ফিরে আসে। বাদ এশা আটি ওয়াপদা কলোনী ক্যানেলপাড় মোল্লা বাড়ি সংলগ্ন জামে মসজিদে নামাজ আদায় শেষে এলাকার মুসল্লি ও স্থানীয় জনতা আটি গ্রাম থেকে একটি আনন্দ মিছিল বের করে। মিছিলটি আটি গ্রাম থেকে শুরু করে আটি ওয়াপদা কলোনী বৌবাজার পর্যন্ত শেষ হয়। এসময় স্থানীয় এলাকাবাসী সাহেব আলীকে গ্রেফতার করায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পুলিশ ও নাসিক ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী মো: নুর উদ্দিন মিয়াকে ধন্যবাদ জানিয়ে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করার দাবী জানান। পাশাপাশি সাহেব আলীর অন্যান্য সদস্য এবং তার ও তার বাহিনীর কাছে থাকা অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করার জন্য আহবান জানান।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তফা জানিয়েছেন আটি ওয়াপদা কলোনী এলাকায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *