স্বপ্নবিলাস ভেঙ্গে দিল এক পরিবারের স্বপ্ন

স্বপ্ন বিলাস ভেঙে দিল এক পরিবারের স্বপ্ন


সিদ্ধিরগঞ্জে স্বপ্ন বিলাস নামে একটি সমিতির ভবন ভেঙ্গে
দিয়েছে একটি পরিবারের স্বপ্ন । গত মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৫টায়
সিদ্ধিরগঞ্জের পাইনাদী নতুন মহল্লা এলাকায় নির্মাণাধীন ১০ তলা ভবনের ৮
তলা থেকে একটি পিলার ধসে পড়ে নিবিয়ে দিল পরিবারটির একমাত্র ৭ বছরের
মেধাবী ছেলে আব্দুল্লাহ’র জীবন প্রদ্বীপ। তবে নিহতের পরিবারের
অভিযোগ পরিকল্পিতভাবে তাদের সন্তানকে হত্যা করা হয়েছে।
রাতে খবর পেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না
তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টরিয়া) হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ
করেছে।
নিহত আব্দুল্লাহ সিদ্ধিরগঞ্জের পাইনাদী নতুন মহল্লা এলাকার স্কুল শিক্ষক
মো: শরীফের ছেলে। সে স্থানীয় হাজী সামসুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের দ্বিতীয়
শ্রেণীর ছাত্র। তার শ্রেণী রোল নম্বর এক। মা গৃহিনী। টিনের ঘরে খাটে
বসে মা ও ছোট বোনের সাথে ছোলা বুট খাচ্ছিল সে । হঠাৎ টিনের চাল
ভেঙে ইটের তৈরি একটি পিলার পড়ে শিশু আব্দুল্লার উপর। এতে শিশুটির করুণ
মৃত্যু হয়।
স্থানীয়রা জানায়, সিদ্ধিরগঞ্জসহ বিভিন্ন স্কুলের ১৮ জন শিক্ষক মিলে
‘স্বপ্ন বিলাস’ নামক একটি সমিতি গঠন করে ১০ তলা ভবনটি নির্মাণ
করছেন। কোন রকম নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়াই ভবনটির নির্মাণ কাজ করা
হচ্ছে। ভবনটির দক্ষিণপাশে স্কুল শিক্ষক শরীফের টিনসেড বাড়ি। ভবন
নির্মাণ কাজ শুরু হওয়ার পর থেকেই তিনি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য
জোর দাবী জানিয়ে আসছেন। কিন্তু সমিতির লোকজন তাতে পাত্তা দেননি।
ফলে নির্মম পরিনতি নেমে আসে স্কুল শিক্ষক শরীফের পরিবারের উপর।
নিহতের পিতা শরিফ মাস্টার বলেন, আমার বাড়িটি নেওয়ার জন্য ওই সমিতির
লোকজন অনেক চেষ্টা করেছে। এক কোটি টাকা খরচ করে হলেও আমার
বাড়িটি নিয়ে যাবে বলে হুমকি দেয়। নিরাপত্তা ব্যবস্থার কথা বলায় ঠিকাদার
আহম্মদ উল্লাহ আমাকে হত্যা করার কথা বলে। একই এলাকায় টি-টাওয়ার
নামক ১০ তলা ভবনে হত্যা কান্ডের অভিযোগে ওই ঠিকাদার বর্তমানে জেলে
রয়েছে।
নিহতের মা এর অভিযোগ, জমি বিক্রি না করায় পরিকল্পিতভাবে স্বপ্ন বিলাস
সমিতির লোকজন আমাদের স্বপ্ন ভেঙে দিয়েছে। একমাত্র ছেলেকে হত্যা
করেছে তারা।
সরেজমিনে গিয়ে ঘটনাস্থলে ভবন মালিক পক্ষের কাউকে পাওয়া যায়নি।
আশপাশের লোকজন জানায়, ঘটনার পর থেকেই নিরাপত্তা রক্ষীর দেখা মিলছেনা।

কেন কিভাবে পিলারটি ভেঙে পড়েছে তাৎক্ষনিক তার সঠিক কারণ জানাতে
পারেনি কেহ।
স্থানীয় বাসিন্দা মাসুদ জানান, গত কয়েকদিন আগে পাশের বাড়ির ৮
বছরের এক মেয়ের উপর কাঠের একটি টুকরা পড়ে। বড় কোন ক্ষতি না হলেও
মেয়েটি আহত হয়। তার পরও ভবন কর্তৃপক্ষের টনক নড়েনি।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তফা বলেন, এ
ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *